২০২০ সালে জেএসসিতে জিপিএ-৪, এসএসসি-এইচএসসিতে ২০২১ এ চালু হতে পারে।

আছসালামু আলাইকুম, কেমন আছেন সবাই? আশা করি ভাল! আমিও আল্লাহর রহমতে ভাল আছি।তো চলোন আর বেশি কথা না বলে কাজের কথায় আছি। আপনারা টাইটেল দেখে বোজতেই পারছেন আজ কোন বিষয় নিয়ে আলোচনা করব।তো চলোন আলোচনা শুরু করা জাক।

পাবলিক পরীক্ষার ফলাফল জিপিএ-৫ এর পরিবর্তে জিপিএ-৪ প্রবর্তনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। এই সিদ্ধান্তে ২০২০ সালের জেএসসি এবং ২০২১ সালের এসএসসি ও এইচএসসিতে জিপিএ-৪ এর ভিত্তিতে ফলাফল দেওয়া হবে। সভায় সভাপতিত্ব করেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি।

ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান মু. জিয়াউল হক বলেন, আমরা একমত হয়েছি পাবলিক পরীক্ষার ফল জিপিএ-৫ থেকে জিপিএ-৪ এ নিয়ে আসবো।

‘জিপিএ-৪ এর ভিত্তিতে ২০২০ সালের জেএসসি এবং ২০২১ সালের এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষার ফল প্রকাশ করা হবে।’

তিনি আরও বলেন, অন্যান্য পরীক্ষাগুলোর ফলাফল জিপিএ-৪ এর ভিত্তিতে দেওয়ার বিষয়ে পরবর্তীতে শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে উদ্যোগ নেওয়া হবে।

বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতেও জিপিএ-৪-এ ফল প্রকাশ হওয়ায় বিদেশে পড়াশোনা ও চাকরির বাজারে উদ্ভূত সমস্যা নিরসনেই মূলত গ্রেড পয়েন্ট কমানোর উদ্যোগ নেওয়া হয়।

শিক্ষা মন্ত্রণালয় জানায়, ২০০১ সালে পাবলিক পরীক্ষায় গ্রেড পদ্ধতি চালু হয়। ৮০-১০০ নম্বরে গ্রেড জিপিএ ৫
৭০-৭৯ নম্বরে জিপিএ ৪
৬০-৬৯ নম্বরে জিপিএ ৩.৫০
৫০-৫৯ নম্বরে জিপিএ ৩
৪০-৪৯ নম্বরে জিপিএ ২
৩৩-৩৯ নম্বরে জিপিএ ১
এবং শূন্য থেকে ৩২ নম্বরে গ্রেড পয়েন্ট শূন্য ধরা হয়।

আর পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে সব বিষয়ে ৮০ এর উপরে নম্বর পেলে
জিপিএ-৪,
৭৫-৮০ নম্বরে জিপিএ ৩.৭৫,
৭০-৭৫ নম্বরে জিপিএ ৩.৫০,
৬৫-৭০ নম্বরে জিপিএ ৩.২৫,
৬০-৬৫ নম্বরে জিপিএ ৩,
৫৫-৬০ নম্বরে জিপিএ ২.৭৫,
৫০-৫৫ নম্বরে জিপিএ২.৫০,
৪৫-৫০ নম্বরে জিপিএ২.২৫,
৪০-৪৫ নম্বরে জিপিএ২
এবং ৪০ নম্বরের কম পেলে অনুত্তীর্ণ ধরা হয়।

Facebook page এ আমরা puretrick টিম।

Facebook Page…

কপি পেস্ট পরিহার করুন।ভুল ক্রুটি আশা করি ক্ষমার দৃষ্টিতে দেখবেন।

৫ ওয়াক্ত সালাত জীবনকে বদলে দেয়।তাই মুসলিম ভাইয়েরা নামাজ পরুন।

আল্লাহ হাফেজ

MD RANA

MD RANA

Share for Know..........

Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Post comment